Trending Now

ঘর থেকেও গৃহহীন ৮ কোটি মানুষ : জাতিসংঘ

করোনা মহামারির মধ্যেও দেশে দেশে সহিংসতা ও নির্যাতন চলছে। যার ফলে ঘর-বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র ঠাঁই নিতে বাধ্য হয়েছেন অনেক মানুষ। যে কারণে বিশ্বের রেকর্ডসংখ্যক মানুষ এখন বাস্তুচ্যুত।

জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআরের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০১৯ সাল পর্যন্ত ৭ কোটি ৯৫ লাখ মানুষ ছিন্নমূল কিংবা বাস্তুচ্যুত হয়েছেন, যা বিশ্বের মোট জনসংখ্যার হিসাবে এক শতাংশেরও বেশি। এ ছাড়া শরণার্থী হিসেবে জীবনযাপন করছেন প্রায় ৩ কোটি মানুষ। ২০২০ সালে আরও অসংখ্য বাধ্য হয়েছেন মানুষ ঘর-বাড়ি ছাড়তে। ফলে এ সংখ্যা ৮ কোটিরও বেশি হবে।

আজ জেনেভায় প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়।

 

গত মার্চে শুরু হয় কোভিড-১৯ মহামারির প্রকোপ। তখন বৈশ্বিক যুদ্ধবিরতির ডাক দিয়েছিলেন  জাতিসংঘের মহাসচিব অ্যান্তোনিও গুতেরেস। কেউ কেউ এই আহ্বানে সাড়া দেয়া সত্ত্বেও এ বছরের প্রথমার্ধে সিরিয়া, গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র, মোজাম্বিক, সোমালিয়া এবং ইয়েমেনে নতুন করে মানুষের বাস্তুচ্যুতি ঘটেছে বলে জানিয়েছে ইউএনএইচসিআর।

জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক এই সংস্থা জানিয়েছে, ধর্ষণ ও নির্যাতনের মতো সহিংসতায় আফ্রিকার সেন্ট্রাল সাহেল অঞ্চলেও নতুন করে আরও উল্লেখযোগ্যসংখ্যক মানুষ বাস্তুচ্যুত হয়েছেন।

ইউএনএইচসিআরের প্রধান ফিলিপ্পো গ্র্যান্ডি এক বিবৃতিতে বলেছেন, ‘ গত দশকে বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র ঠাঁই নিতে বাধ্য হওয়া মানুষের সংখ্যা বেড়ে দ্বিগুণ হলেও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় তাদের সুরক্ষা ও বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠায় ব্যর্থ হয়েছে। আমরা এখন আরও একটি অকল্পনীয় মাইলফলক অতিক্রম করছি। বিশ্বনেতারা যুদ্ধ বন্ধ না করা পর্যন্ত এ সংখ্যা বাড়তেই থাকবে।’

About STAR CHANNEL

Check Also

ডুবে যাওয়ার আগ পর্যন্ত সচল ছিল ইন্দোনেশিয়ার প্লেনটি

ইন্দোনেশিয়ার তদন্তকারী সংস্থা গত সপ্তাহে সমুদ্রে বিধ্বস্ত হওয়া শ্রীবিজয়া প্লেনের ফ্লাইট ডাটা রেকর্ডার (এফডিআর) থেকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *